২০৪০-এ উৎপাদনের চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ লাগবে কম্পিউটারে

কম্পিউটার Jul 11, 2018 645 Views
Googleplus Pint

লাইকবিডি ডেস্ক: সেমিকন্ডাক্টর ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশনের (এসআইএ) সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে যে ২০২১ সালের পরে ট্রানজিস্টরের আকার আর ছোট হবে না।

ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, কম্পিউটার এখন যে কয়টি মারাত্মক সমস্যা মোকাবিলা করছে তার মধ্যে একটি হচ্ছে বিদ্যুৎ সমস্যা।

এসআইএর গবেষণার সূত্র ধরে দ্য রেজিস্টারের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিশ্বের বৃহত্তম কম্পিউটার অবকাঠামোতে এখন বিশ্বের মোট বিদ্যুৎশক্তির বড় অংশ ব্যবহৃত হচ্ছে। আইটিআরএস বলছে, এই গতিপথের একটি নিজস্ব সীমাবদ্ধতা আছে। ২০৪০ সাল নাগাদ বিশ্বজুড়ে যত বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে, কম্পিউটিংয়ে তার চেয়ে বেশি বিদ্যুতের দরকার হবে।

আইটিআরএসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সেমিকন্ডাক্টর নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ট্রানজিস্টরের আকার ছোট করাটা আর্থিকভাবে লাভজনক হবে না। প্রতিষ্ঠানগুলোকে থ্রিডি প্রিন্টিং বা অন্যান্য প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে।

ট্রানজিস্টর কত কম শক্তিতে চলে, তাই এখন সেমিকন্ডাক্টর শিল্পের জন্য বড় চাহিদা হয়ে উঠেছে এবং চিপে ট্রানজিস্টর বাড়ানোর চাহিদাও বাড়ছে। পণ্যের চাহিদার সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে এ ক্ষেত্রে নতুন যুগের সূচনা হচ্ছে।

প্রযুক্তি-বিষয়ক ওয়েবসাইট এনগ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগামী পাঁচ বছরে অবশ্য মুরের সূত্রের সমাপ্তি ঘটবে না। ত্রিমাত্রিক প্রিন্টারের মতো প্রযুক্তি চিপের জটিলতা আরও বাড়াবে।

তথ্যসূত্র: দ্য রেজিস্টার।

Googleplus Pint
admin
Administrator
Like - Dislike
Rate this post

পাঠকের মন্তব্য