Likebd.com
টেস্টেও এগিয়ে চলছে টাইগাররা

টেস্টেও এগিয়ে চলছে টাইগাররা

চট্টগ্রাম ব্যুরো: অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টের উইকেটেই প্রস্তুুতি ম্যাচ নিয়ে আজ মাঠে নামার সুযোগ পাচ্ছেন টাইগাররা। সব মিলিয়েই ক্যাম্পের জন্য চট্টগ্রামকে বেছে নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ এখন কন্ডিশনের ফায়দা নিতে শিখেছে। নিজেদের শক্তি অনুযায়ী উইকেট বানানোর সাহস দেখাচ্ছে। প্রতিপক্ষ যতই শক্তিশালী হোক, জবাব দেওয়ার সম্পদ আছে।টানা সেশনে কয়েকদিন ঘাম ঝরানোর পর মঙ্গলবার ছিল বিশ্রামের একটু সময়। আজ […]

চট্টগ্রাম ব্যুরো: অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টের উইকেটেই প্রস্তুুতি ম্যাচ নিয়ে আজ মাঠে নামার সুযোগ পাচ্ছেন টাইগাররা। সব মিলিয়েই ক্যাম্পের জন্য চট্টগ্রামকে বেছে নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ এখন কন্ডিশনের ফায়দা নিতে শিখেছে। নিজেদের শক্তি অনুযায়ী উইকেট বানানোর সাহস দেখাচ্ছে। প্রতিপক্ষ যতই শক্তিশালী হোক, জবাব দেওয়ার সম্পদ আছে।

টানা সেশনে কয়েকদিন ঘাম ঝরানোর পর মঙ্গলবার ছিল বিশ্রামের একটু সময়। আজ বুধবার থেকে বৃহস্পতি ও শুক্রবার পর্যন্ত নিজেদের মধ্যেই দুই ভাগে শুরু হচ্ছে তিনদিনের প্রস্তুুতি ম্যাচ। প্রতিপক্ষকে জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুুতি ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ টেস্ট অধিনায়কের।

সিরিজের প্রস্তুুতি ক্যাম্পের ফাঁকে ফাঁকে টেস্ট অধিনায়ক জানালেন, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলার উপযুক্ত সময় এখনই। দীর্ঘ অমানিশা কাটিয়ে টেস্টের বাংলাদেশ গত কিছুদিনে দেখতে পেয়েছে আলোর রেখা। কয়েকদিনের অনুশীলনীর মাঝে বিশ্বাসের হাত ধরে এসেছে দারুণ কিছু পারফরম্যান্স। আর সেই পারফরম্যান্স থেকেই আবার জন্ম নিয়েছে আরও বেশি বিশ্বাস। এবার অস্ট্রেলিয়াকেও যদি হারানো যায়, নিশ্চিতভাবেই বলা যাবে, ওয়ানডের মতো টেস্টেও পরের ধাপে পা রেখেছে টাইগাররা।

টেস্ট অধিনায়কের মতে, অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট স্কোয়াডে স্পিনার তিনজন। নাথান লায়ন ও অ্যাশটন অ্যাগার শুরু থেকে ছিলেন, পরে যোগ করা হয়েছে লেগ স্পিনার মিচেল সোয়েপসনকে। মুশফিকের ধারণা, উইকেট অনুমান করতে পেরেই স্পিন ভারী আক্রমণ নিয়ে আসছে অস্ট্রেলিয়া।  আমরা খুব ভালো প্রস্তুুতির সুযোগ পেয়েছি, ভালোভাবে কাজে লাগাচ্ছি। আশা আছে, যেন ঘরের কন্ডিশন কাজে লাগাতে পারি। তবে ওয়ানডের মত উন্নতিটা চোখ ধাঁধানো না হলেও টেস্টে বাংলাদেশ এখন উজ্জ্বল আগের চেয়ে। টেস্টেও ছোট ছোট কদমে এগিয়ে চলছে টাইগাররা।

গেল বছরের অক্টোবরে ইংল্যান্ডকে চট্টগ্রামে প্রায় হারিয়ে দিয়েছিল মুশফিকের দল। সেটিতে না পারলেও দারুণ জয় ধরা দেয় পরের টেস্টেই। নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়েলিংটন টেস্টেও একটা বড় সময় নিয়ন্ত্রণে ছিল বাংলাদেশই। শ্রীলঙ্কা সফরে প্রথম টেস্টে হারের পর আবার দারুণ এক জয় আসে পরের টেস্টে। একটা সময় নিজেদের কন্ডিশন সেভাবে কাজে লাগাতে পারেনি টাইগাররা। সেই চিত্র বদলাতে শুরু করেছে। ইংল্যান্ড সিরিজে টার্নিং ট্র্যাক বানিয়ে সফল হয়েছে টিম বাংলাদেশ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামলেই টাইগারদের একটা আক্ষেপ পূর্ণ হবে নিমিষেই। আরেকটা আক্ষেপ ঘোছাতে মাঠে নেমে জবাব দিতে হবে ব্যাটে বলে। সাদা জার্সি আর লাল বলে জবাব দিতেই ঢাকা থেকে উড়ে এসে চট্টগ্রামেও অনুশীলন ও উইকেটেই প্রস্তুুতি ম্যাচ নিয়ে ব্যস্ত হাথুরু শিষ্যরা। টাইগার সমর্থকরাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষমান প্রতীক্ষার সব আক্ষেপ ঘোচানোর মিশন দেখতে।

Add comment

Most discussed