Likebd.com
নিজের পারফরম্যান্সে সন্তষ্ট নন বোল্ট

নিজের পারফরম্যান্সে সন্তষ্ট নন বোল্ট

বিডিলাইভ ডেস্ক: হিটে তিনি ‘হিট’ করবেনই এ ব্যাপারে কারো মনে কোনো সংশয় ছিল না। সাধারণের চোখে দেখলে, ভাবলে, তিনি ‘হিট’ই।কিন্তু পরীক্ষকের চোখে? সবচেয়ে বড় কথা নিজের চোখে? কত নম্বর দেবেন, বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটারের হিটে ১০.০৭ সেকেন্ড সময়কে? উসাইন বোল্ট জানিয়ে দিলেন, ‘অত্যন্ত খারাপ’। স্টার্টিং ব্লক থেকে ছিটকে বেরোল যখন শরীর, তখনই একটু যেন কমতি […]

লাইকবিডি ডেস্ক: হিটে তিনি ‘হিট’ করবেনই এ ব্যাপারে কারো মনে কোনো সংশয় ছিল না। সাধারণের চোখে দেখলে, ভাবলে, তিনি ‘হিট’ই।

কিন্তু পরীক্ষকের চোখে? সবচেয়ে বড় কথা নিজের চোখে? কত নম্বর দেবেন, বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটারের হিটে ১০.০৭ সেকেন্ড সময়কে?

উসাইন বোল্ট জানিয়ে দিলেন, ‘অত্যন্ত খারাপ’। স্টার্টিং ব্লক থেকে ছিটকে বেরোল যখন শরীর, তখনই একটু যেন কমতি লেগেছিল। তারপর মাঝপথে গতি যেন কমে এলো আরও কিছুটা। তবে শেষ দিকে গতি কিছুটা বাড়িয়ে ফিনিশিং লাইনে সবার আগেই পৌঁছলেন। অখুশির কারণ কী শুরুটা ঠিক না হওয়া? বোল্ট বলেছেন, ‘ব্লক থেকে বেরোনোর মুখেই আমি হোঁচট খেয়েছিলাম। এই ধরনের ব্লক দেখলেই আসলে বিরক্ত লাগে। আমার কেরিয়ারের সবচেয়ে জঘন্য স্টার্টিং ব্লক, এই কথাটা বলতে একটুও দ্বিধা নেই। এত খারাপ ব্লক হলে, শুরুটা ঠিক হবে কী করে?’

এখানেই শেষ নয়। ব্লকটা যে নড়বড়ে ছিল, সে কথা জানাতেও ভোলেননি বিশ্বের দ্রুততম। বলেছেন, ‘ওয়ার্ম আপের সময় অদ্ভুত একটা কাণ্ড ঘটেছিল। স্টার্টিং ব্লক থেকে যেই বেরোতে গেছি, ওটা উল্টে গেল! এই ধরনের ঘটনার মুখোমুখি আগে কখনও হয়নি।’ বোল্টকে নিয়ে যখন গোটা বিশ্ব উত্তাল, তখন গ্যাটলিনকে এবারেও টিটকারি শুনতে হয়েছে হিট চলাকালীন। আসলে ডোপ টেস্টে ধরা পড়ার পর থেকেই এই ধরনের কটাক্ষ শুনতে হয়েছে গ্যাটলিনকে। বোল্ট অবশ্য সেই রাস্তায় হাঁটেননি। বলেছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি বিশ্বাস করি, গ্যাটলিন দুর্দান্ত অ্যাথলিট। ও সেটা প্রমাণ করেছে। ওকে দেখে আরও জোরে দৌড়তে ইচ্ছে করে।’

Add comment

Most discussed