Home / ইন্টারনেট / বাংলা ভাষার ওয়েবসাইটের জন্য গুগল অ্যাডসেন্স

বাংলা ভাষার ওয়েবসাইটের জন্য গুগল অ্যাডসেন্স

অবশেষে বাংলা ভাষার ওয়েবসাইটের জন্য বিশ্বখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন গুগল অ্যাডসেন্স চালুর ঘোষণা দিয়েছে। গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে এক ব্লগপোস্টে বিস্তারিত জানানো হয়। সিঙ্গাপুরে গুগল অফিসে অনুষ্ঠিত ‘টপ কন্ট্রিবিউটর সামিট’-এ বিষয়ে প্রাথমিক ভাবে গুগলের কন্টিবিউটরদের জানানো হয়। এর পরেই ব্লগপোস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। গুগলের তথ্য মতে, বাংলাদেশ, ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলা ভাষার ব্যবহার বেড়েছে অনেক। ব্যবহারকারীদের কথা বিবেচনায় রেখেই অন্যান্য ভাষার পাশাপাশি বাংলায় গুগল অ্যাডসেন্স চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বাংলাসহ ৪১টি ভাষায় বর্তমানে গুগল অ্যাডসেন্স চালু রয়েছে। বাংলা ভাষায় অ্যাডসেন্স চালু হওয়ার ফলে এ সংখ্যায় নতুনমাত্রা যুক্ত হবে বলে মনে করছেন তথ্যপ্রযুক্তি ও বাংলা নিয়ে কাজ করছেন এমন মানুষেরা। তাদের মতে, গুগল অ্যাডসেন্সের বাংলা ভাষায় সমর্থনের বিষয়টি দীর্ঘদিনের প্রত্যাশিত থাকলেও এতদিন অন্যতম এ ডিজিটাল টুলস বাংলা সমর্থন করতো না। এ টুলসটি দীর্ঘদিন ধরে বাংলা ভাষা সমর্থন না করায় অনেকেই নানা ভাবে ব্যবহারের চেষ্টা করতো। তবে এখন যেহেতু বাংলা ভাষাতেই সমর্থন করছে গুগল তাই আর সে সমস্যাগুলো হবে না। গুগলের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, সারাবিশ্বের ৩৫ কোটি মানুষের ভাষা বাংলা। আর বাংলা ভাষায় গুগল অ্যাডসেন্সের স্বীকৃতি মূলত ডিজিটাল দুনিয়ায় বাংলা ভাষার শক্তিশালী অবস্থানকেই তুলে ধরছে।

গুগলের তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে বিশ্বের প্রায় দেড় কোটি ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স ব্যবহার করা হচ্ছে। ২০১৫ সালেই গুগল অ্যাডসেন্স প্রকাশকদের প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার পেমেন্ট দিয়েছে। গুগলের বাংলা ভাষা নিয়ে কাজ করা গুগল ডেভলপার গ্রুপ বাংলা (জিডিজি বাংলা) অনেকদিন ধরেই গুগলে বাংলা নিয়ে কাজ করছে। তারাও বিষয়টিকে দারুন বলে মনে করছেন। তাদের মতে, এটা অবশ্যই বাংলা ভাষাভাষি ভিত্তিক ওয়েবসাইটের জন্য বেশ ভালো।

গুগল অ্যাডসেন্স হচ্ছে গুগল পরিচালিত একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন যা মূলত একটি লাভ-অংশীদারি

প্রকল্প। গুগল অ্যাডসেন্সের সাহায্যে ব্যবহারকারী তার ওয়েবসাইটে ব্যবহৃত বিজ্ঞাপনের কনটেন্ট থেকে আয় করতে পারেন। অ্যাডসেন্স গুগলের বিজ্ঞাপন প্রচার করে । এ প্রোগ্রামের মাধ্যমে গুগল তৃতীয় পক্ষের বিভিন্ন বিজ্ঞাপন বিভিন্ন সাইটে প্রদর্শন করে। আর ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের মাধ্যমে সাইটের মালিক অর্থ উপার্জন করতে পারে। বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত অর্থের ৬৮ শতাংশ (কনট্যান্টের ক্ষেত্রে) এবং ৫১ শতাংশ (সার্চের ক্ষেত্রে) সাইটের মালিকদের দেয় গুগল। অ্যাডসেন্স ওয়েবসাইটের পাশাপাশি ইউটিউব, মোবাইল অ্যাপেও ব্যবহার করা যায়। গুগল কর্তৃক ব্যবহারকারীকে একটি কোড দেয় হয়, যা ব্যবহারকারী ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে হয় বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য। আর মাস শেষে আয় ১০০ ডলার বা তার বেশি অতিক্রম করলে গুগল থেকে চেকের মাধ্যমে অর্থ পাঠানো হয়।

এখন যারা বাংলা সাইটের জন্য গুগল অ্যাডসেন্স সক্রিয় করতে চান তারা প্রথমে গুগল অ্যাডসেন্সলিংকে যান। এখানে আপনার ওয়েবসাইটের নাম এবং ভাষা বাংলা নির্বাচন করে সাবমিট করলেই গুগল অ্যাডসেন্সের পক্ষ থেকে কোড দেওয়া হবে যা আপনার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে হবে। এর নির্দিষ্ট কিছু সময় পরেই নীতিমাল অনুযায়ী সব ঠিক থাকলে চালু হয়ে যাবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হবে।

Share With

About Hasan

LIkebd Is best place where you share your knowledge. So I want to change this.

Check Also

ফোরজি নেটওয়ার্ক চালু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে

মেগাহার্টজ টুজি এবং থ্রিজি স্পেকট্রামের মূল্য ২ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার। সংশ্লিষ্টরা বলছেন,এর ফলে …

Leave a Reply