Likebd.com
সকালে এলাচের উপকারীতা

সকালে এলাচের উপকারীতা

[start]

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বক কুঁচকে যায় এবং কমতে থাকে তার ঔজ্বল্য।এর জন্য একদিকে যেমন দায়ী বাইরের ধোঁয়া-ধুলো- ময়লা, অন্যদিকে তেমনই দায়ী আমাদের শরীরের মধ্যে থাকা বিভিন্ন রোগ। ধীরে ধীরে বয়স বাড়তে থাকলে শরীরের মধ্যে থাকা কলকবজাগুলো বিকল হতে শুরু করে। ফলে সেই প্রভাব সহজেই পড়ে আমাদের ত্বকে।তাই ত্বককে রক্ষা করতে গেলে সবার আগে রোগমুক্ত হওয়া প্রয়োজন। কিন্তু কীভাবে থাকবেন রোগমুক্ত?

এব্যাপারে আপনি চোখ বন্ধ করে ভরসা করতে পারেন এলাচের উপর। প্রতিদিন নিয়ম করে এলাচ খেলে আপনার ত্বকও থাকবে যৌবনের মতই প্রাণবন্ত। হ্যাঁ, এখন এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, এলাচের মধ্যে এমন সব গুণ রয়েছে যা শুনলে চমকে যাবেন আপনিও। আসুন জেনে নেওয়া যাক কী কী গুণে সমৃদ্ধ সুগন্ধি এলাচ –

বুক জ্বালা, বমি ভাব, গ্যাস, অ্যাসিডিটির হাত থেকে মুক্তি পেতে এলাচ কার্যকরী। এমনকি দেহের ক্ষতিকর টক্সিন দূর করতেও এলাচের জুড়ি নেই। এলাচের ডিউরেটিক উপাদান দেহের ক্ষতিকর টক্সিন পরিষ্কারে সহায়তা করে।

এছাড়া রক্তনালীতে রক্ত জমে যাওয়ার সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। এলাচের রক্ত পাতলা করার দারুণ গুণটি এই সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে। প্রতিদিন এলাচ খেলে রক্তের ঘনত্ব ঠিক থাকে।

এলাচের ডিউরেটিক উপাদান উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কমিয়ে আনতে সক্ষম। দেহের বাড়তি ফ্লুইড দূর করে এলাচ উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে আনতে সহায়তা করে। এলাচের মধ্যে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান। যা ত্বকে বয়সের ছাপ, রিংকল পড়তে বাধা দেয়।

তাই প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার আগে চারটি থেকে আটটি এলাচ এক গ্লাস জলে ভিজিয়ে রাখুন। আর সকালে উঠে খালি পেটে ওই জলটা খেয়ে নিন। এছাড়াও অনেকের মুখে খুব দুর্গন্ধ হয়। যাদের এই সমস্যা রয়েছে তারা মাঝেমধ্যে গোটা এলাচ মুখের মধ্যে রেখে দিতে পারেন। কারণ এলাচ মুখের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে মুখের দুর্গন্ধ দূর করে।

আবার নিয়মিত এলাচ খাওয়ার অভ্যাস মুখের দুর্গন্ধের পাশাপাশি মাড়ির ইনফেকশন, মুখের ভিতরের ঘা, দাঁত ও মাড়ির নানা সমস্যা থেকে আপনাকে রক্ষা করতে পারে। এমনকী গবেষণায় দেখা গিয়েছে নিয়মিত এলাচ খাওয়ার অভ্যাস ক্যানসার প্রতিরোধেও সহায়তা করে।

সূত্রঃ সংবাদ প্রতিদিন

[end]

Add comment

Most discussed