জ্যোস্না রাত এর অপরুপ সূন্দর্য

জ্যোস্না রাত
জ্যোস্না রাত

চন্দ্রালােকিত রাতের অপরূপ শােভা দেখা ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা। ঘটনাচক্রে এক রাতে জ্যোৎস্নার রূপ-মাধুরী অবলােকন করে আমি বিস্মিত। জ্যোত্সার সৌন্দর্যের এমন অপূর্ব রূপ আমি আমার ক্ষুদ্র জীবনে আর কখনাে অনুভব করিনি। জ্যোস্না রাতের অপরূপ সৌন্দর্য : ঝিরিঝিরি বাতাস, নির্জন সন্ধ্যা। গ্রামের পথঘাটে কোথাও প্রাণের আভাস মাত্র নেই। বৌদ্ধপূর্ণিমার রাত। চাঁদ যেন তার অপূর্ব শুভ্র আলাে ঢেলে দিচ্ছে পৃথিবীর বুকে। সমস্ত নিসর্গ যেন জ্যোত্সার শুভ্রতায় আত্মলীন হয়ে গেছে। চাঁদের স্নিগ্ধ আলােয় প্রকৃতির এই শােভা দেখে আমি অভিভূত। মনে পড়ে রবীন্দ্রনাথের সেই গানের কলি—“আজ জ্যোৎস্না রাতে সবাই গেছে বনে/বসন্তেরই মাতাল সমীরণে। বনের ভেতরে দাঁড়িয়ে জ্যোত্সর প্রকৃতি অনুভব করা ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা।

জ্যোস্না রাত
জ্যোস্না রাত

জ্যোস্ত্র ও মানুষের মন : ‘আয় আয় চাঁদ মামা” বলে ছােটবেলা থেকে আমাদের সঙ্গে চাঁদের নিবিড় আত্মীয়তার সম্পর্ক গড়ে তােলা হয়। চাঁদ যেন জীবনে স্নিগ্ধতার আলাে ছড়ায়। কবি-সাহিত্যিকরা চাঁদকে নিয়ে লিখেছেন মরণীয় কত কবিতার পঙক্তি। এভাবে চাঁদ আর জ্যোত্স মানবজীবনে অমলিন হয়ে আছে।

গ্রামের জোসনা রাতঃ গ্রামীণ জীবনের জ্যোৎস্নারাত একটি আনন্দঘন মুহুর্তে সময় জোসনার মিটিমিটি আলো সবার মনকে করে যায় আনন্দে ভরপুর মানুষ ঘর থেকে বের হয়ে বাহিরে চলাফেরা করেন আড্ডা দেন বাচ্চারা খেলাধুলা করেন। বড় ছোট সবাই মিলে বাড়ির উঠানে বসে একত্রে গল্প-আড্ডা কবিতা গান ছড়া আবৃত্তি করেন এই মুখরিত পরিবেশ আপনার মনকে নরম করে দিবে।

জ্যোৎস্নার আলোয় প্রকৃতির এক অপরূপ সৌন্দর্য চারদিকে প্রকৃত করে মনকে দোলা দিয়ে যায় মানুষ প্রকৃতির সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে বিভিন্ন পিঠা উৎসব করে থাকে। তাই বলা হয়েছে জোসনা রাত হচ্ছে একটি অপরূপ সৌন্দর্যের প্রতীক। জোসনা রাতের আরেকটি মজার বিষয় হচ্ছে খোলা মাঠ খোলা মাঠে বসে বাচ্চারা খেলাধুলা করেন এবং সবাই আড্ডা দেন।

জোসনা রাতে হেঁটে বেড়ানোর মজাই আলাদা, গ্রামের আঁকাবাঁকা পথে হেঁটে বেড়াতে এক ভালোলাগা সৃষ্টি হয় তাই অবশ্যই জোসনা রাতে হাটা দেখবেন।

উপসংহার : জ্যোস্না রাতে প্রকৃতিকে খুব মায়াবী দেখায়। চারদিকে জ্যোৎস্নার শুভ্রতা, নদীতীরে দিগন্তজোড়া প্রান্তরে দাঁড়ালে যে-কোনাে মানুষের মনে স্নিগ্ধতার বােধ জন্মে। আনন্দে ভরে যায় সারা মন।

ভিন্ন কিছু পোষ্টঃ
নৌকায় ভ্রমণের একটি অভিজ্ঞতা সম্পূর্কে জানুন
বাংলাদেশের বেকার সমস্যা ও তার প্রতিকার
গ্রাম্যমেলা-গ্রাম-বাংলার


ফেসবুকে আমরাঃ https://www.facebook.com/likebdcom/

Hasan
প্রযুক্তির সাথে সামনে এগিয়ে যেতে আমার ক্ষুদ্র চেষ্টা । নিজের জ্ঞানকে মানুষের মাজে শেয়ার করার মাঝে খুজে পাই সুখ । তাই পোষ্ট ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। যেকোনো প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমি সাহায্য করার চেষ্টা করবো।