Likebd.com
শীতে ত্বকের যত্নে করণীয়

শীতে ত্বকের যত্নে করণীয়

বিডিলাইভ ডেস্ক: গরমকে বিদায় জানিয়ে শীতকে আমন্ত্রণের সময় এটা৷ তাই এখন থেকেই ত্বকের যত্ন না নিলে ফাটা ত্বক নিয়ে আপনাকে শীত কাটাতে হবে। কারণ শীতে তাপমাত্রাও কমে আসার সঙ্গে সঙ্গে বাতাস শুষ্ক হয়ে যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক শীতে ত্বকের সুরক্ষার জন্য আপনি কিভাবে বাড়তি যত্ন নিতে পারেন।সাবান পরিহার করুন:সুগন্ধী সাবান আপনাকে একদিনের জন্য ফ্রেস […]

লাইকবিডি ডেস্ক: গরমকে বিদায় জানিয়ে শীতকে আমন্ত্রণের সময় এটা৷ তাই এখন থেকেই ত্বকের যত্ন না নিলে ফাটা ত্বক নিয়ে আপনাকে শীত কাটাতে হবে। কারণ শীতে তাপমাত্রাও কমে আসার সঙ্গে সঙ্গে বাতাস শুষ্ক হয়ে যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক শীতে ত্বকের সুরক্ষার জন্য আপনি কিভাবে বাড়তি যত্ন নিতে পারেন।

সাবান পরিহার করুন:

সুগন্ধী সাবান আপনাকে একদিনের জন্য ফ্রেস রাখতে পারে৷ কিন্তু আপনার ত্বককে এটা রুক্ষ করে দেয়৷ ত্বক রুক্ষ হতে শুরু করলে ডিহাইড্রেট ফ্রি সাবান ব্যবহার বন্ধ করুন৷ এই শুষ্ক সময় ব্যবহার করুন ক্রিমযুক্ত বডি-ওয়াশ৷

লোশন ছেড়ে তুলে নিন ক্রিম:

বাতাস শুষ্ক হয়ে যাওয়ায়, ত্বকের প্রচুর পরিমাণে আর্দ্রতা দরকার৷ ক্রিম একটা তৈলাক্ত আবরণ তৈরি করে৷ ফলে লোশন ছেড়ে ক্রিম ব্যবহারই বাঞ্ছনীয়৷

ঠোঁট বাঁচান:

শীতে ত্বকের আদ্রতা কমে যাওয়ার কারণে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। ত্বকের মতো ঠোঁট এই শীতে শুষ্ক হয়ে যায়। তাই ফাটা ঠোঁট বড় একটা সমস্যা৷ শীতে ঠোঁট ফাটার হাত থেকে বাঁচাতে ব্যবহার করুন নন-পেট্রোলিয়াম জেল৷ সব সময় এটা সঙ্গে করে রাখতে পারেন।

একটা হ্যান্ড ক্রিম কিনেই নিন:

শীতে হাতের চামড়ার খুব ক্ষতি হয়৷ শরীরের যত্ন নিয়ে হাতের দিকে নজর দেন না অনেকেই৷ এবার এটা না করে হাতের দিকেও নজর দিন৷ হ্যান্ড ক্রিম হাতের ত্বককে নরম করে ও রুক্ষতার হাত থেকে বাঁচায়৷

প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন:

শুধু বাইরের দিক থেকে রুক্ষতা প্রতিরোধ করাই নয়৷ নিজেকে ভিতর থেকে সজীব ও সতেজ রাখার জন্য প্রচুর পানি পান দরকার৷ এমনিতে বেশি পানি খাওয়ার উপকারিতার কোনো বিকল্প নেই? এই শীতে ত্বক তো বটেই, সারা শরীরে সুস্থতার জন্যই কাজ দেবে৷

বেশি করে সবজি ও ফল খান:

প্রতিটি ঋতুতে শরীরে কী কী উপাদানের ঘাটতি পড়ে আর কী দরকার, সেই হিসেবেই আসে মৌসুমি ফল ও সবজি৷ শীতে সবজির সমাহার৷ সবজি ভাল লাগে না বলে নাক কুঁচকোবেন না৷ বরং এই সবজির ভিটামিনই আপনার স্বাস্থ্য ও ত্বককে সতেজ রাখবে৷ ফলও একান্ত প্রয়োজনীয়৷ জরুরি ভিটামিন ও খনিজ সরবরাহে এদের বিকল্প নেই৷

Add comment

Most discussed